Thursday, May 11, 2017

একটি কাল্পনিক কথোপকথন – কোনো এক দেশের প্রধানমন্ত্রী নমো ও তার পছন্দের সাংবাদিক চৌধুরী এর মধ্যে। (লেখিকা – শ্রীমতী শ্রীপর্ণা রায়) An imaginary conversation between a country’s PM NAMO and his favorable journalist Chowdhury. Written by Mrs. Sreeparna Roy.


এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান.... তিন বছরে ছয়টি মহাদেশে ৫৬ বার বিদেশ সফরে গিয়ে ৪৫ টি দেশ ঘুরে নমো ৫৭ তম বিদেশ সফরে যাচ্ছেন... ৪৬ তম গন্তব্য দেশ হলো ক্যারিবিয়ান দ্বীপ পুঞ্জের ছোট্ট দেশ সেন্ট কিটস এন্ড নাবিস....

দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের উন্নতির জন্য তার এই বিদেশ সফর বলে নমোর অফিস থেকে জানানো হয়েছে... সঙ্গী বাছাই করা কিছু সাংবাদিক এবং জনা কয়েক উচ্চপদস্থ আমলা... প্লেনের মধ্যে বসেই নমো তার প্রিয় সাংবাদিক চৌধুরীকে এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকার দিচ্ছেন..... 

 

চৌধুরী...: স্যার, তিন বছর... অনেকটা সময়... অনেক "মন কী বাত".... অনেক সাফল্য.... আপনার চোখে আপনার সরকারের সবচেয়ে ইউনিক,ব্যাতিক্রমী সাফল্য কোন্‌টি...??

নমো...: আমার সব সাফল্যই ইউনিক, ব্যাতিক্রমী এটা তুমি জানো... তবে সবচেয়ে ইউনিক আর ব্যাতিক্রমী সাফল্য হলো কাশ্মীরে নিহত জঙ্গির শেষকৃত্যে লাইন করে দাড়িয়ে প্রকাশ্যে জঙ্গিদের বন্দুক থেকে গুলি ছুড়ে মিলিটারি কায়দায় গান স্যালুট দেওয়া.... চ্যালেঞ্জ নিয়ে বলতে পারি এমন ইউনিক সাফল্য এর আগে কোনো প্রধানমন্ত্রী পান নিই, আর আগামীতেও পাবেন কীনা সন্দেহ। 

 

চৌধুরী...: হেঁ হেঁ ... তা ঠিক, তা ঠিক.. তবে গরুর আধার কার্ড বানানোর যে প্রকল্পটা হাতে নিয়েছেন তার আইডিয়াটাও কিন্তু ইউনিক....

নমো...: আরে সুপ্রিম কোর্ট নিয়ম করে নাগরিকদের আধার কার্ডের আব্যশকতা কে বারবার চ্যালেঞ্জ করছিলো... তার ফলে টার্গেট পুরো করা যাচ্ছিলো  না কিছুতেই... তাই নিতান্ত বাধ্য হয়েই সুপ্রিম কোর্টে গরুদের আধার কার্ড তৈরী করার কথা জানানো হয়...
আমি টার্গেটে বিশ্বাস করি... যেমনভাবেই হোক টার্গেট পুরো করতেই হবে... তাতে মানুষের পরিবর্ত হিসেবে গরু হলেও আপত্তি নেই...

 

চৌধুরী...: বা:... দারুন স্যার... আপনার জবাব নেই... তা স্যার দেশের আর্থিক উন্নতিতে আপ্নার সেরা সাফল্য কী..?? 

নমো...: দেখো চৌধুরী, আমি ছোটোবেলা থেকে ব্যাবসাটা ভালো বুঝি, তাই দেশের অর্থনীতি নিয়ে আমার নির্দিষ্ট ভাবনায় আমি এগোচ্ছি...
 
ইতিমধ্যে গরুর মাংস রপ্তানিতে আমরা সারা বিশ্বের মধ্যে প্রথম... দেশের মানুষ যাতে গরুর মাংস খেয়ে দেশের সম্পদ নষ্ট না করে তার জন্য ব্যাকডোর ব্যাবস্থায় গো রক্ষা বাহিনী তৈরী করলাম ...
তারা গৃহস্থের ফ্রিজে পর্যন্ত হানা দিচ্ছে.... বেচাল দেখলে একেবারে গনপিটুনিতে ভবলীলা সাঙ্গ করে দিচ্ছে.... আতঙ্কে দেশে গরুর মাংস বিক্রিতে ভাটা ... সাথে সাথে রপ্তানিতে ট্যাক্স কমিয়ে দিলাম ... হু হু করে বিদেশি মুদ্রা দেশে আসা শুরু হয়ে গেলো গো মাংস থেকে ....
বলো এমন ভাবনা আমার আগে কেউ ভেবেছিলো...?? 

 

চৌধুরী...: ওরে বাবা... কী অসামান্য ভাবনা আপনার... সত্যি আপনি মহাগুরু... তা স্যার দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় আপনার সাফল্যটা একটু বলবেন...??

নমো...: দেখুন দেশের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো কারন নেই.... মাওবাদীরা সক্রিয়...গণহারে তারা দেশের জওয়ানদের খুন করছেন, মনিপুর অশান্ত, সেখানে জঙ্গিদের হাতে সেনা শহীদ হচ্ছেন, কাশ্মীরের সীমান্তে পাক সৈন্যরা দেশের জওয়ানদের মাথা কেটে নিয়ে যাচ্ছে, কাশ্মীরের অভ্যন্তরে জঙ্গিদের হাতে সি আর পি এফ , পুলিশ নিহত হচ্ছেন, রাজ্যে রাজ্যে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা হচ্ছে,কোথাও ঠাকুর দলিত আবার কোথাও যাদব দলিত জাতি দাঙ্গা হচ্ছে...  
 
এর ফলে  বিক্ষিপ্তভাবে এইসব জায়গায়  একটা অস্থিরতার সৃষ্টি হচ্ছে... সাময়িক কিছু ক্ষতি হচ্ছে...
 
কিন্তু একটু ভাবুন তো এসব হচ্ছে বলেই তো সারা দেশের সাধারণ মানুষ টু শব্দটি না করে দুশো টাকা দিয়ে ডাল কিনছে,দ্বীগুন দাম দিয়ে ট্রেনের টিকিট কাটছে, ১৫% সার্ভিস ট্যাক্স দিচ্ছে,৪৫০ টাকার গ্যাস ৭৫০ টাকায় কিনছে, ১৫ লক্ষ টাকার কথা ভুলে গেছে,এম আই এস কম নিচ্ছে, সঞ্চয়ে সুদ কম নিচ্ছে...
 
সাধারন মানুষের কোনো প্রতিবাদ নেই,বিক্ষোভ নেই ,আন্দোলন নেই.... তারা সবাই  শুধু হিন্দু-মুসলিম-পাকিস্তান-জেহাদী-মাওবাদী-দলিত দের নিয়ে ভেবে যাচ্ছে... আর ওদিকে মনের সুখে দেশের রত্নরা ব্যাবসা করছে... দেশে ও বিদেশে... এমনকি পাকিস্তানেও... দেশের সম্পদ বাড়ছে... বৈদেশিক মুদ্রা আসছে....
 
আমি ছোটবেলা থেকে ব্যাবসায়ী, সবকিছুই ব্যাবসার নজরে দেখি ভাই... তাই আজ আমার এত সাফল্য... 

 

চৌধুরী...: স্যার এত গভীরে ভেবে দেখি নিই... ধন্য আপনার ভাবনা... তা স্যার দেশের পরিকাঠামোর উন্নয়নে আপনার সাফল্য...

নমো..: এখানে দুটো ইউনিক সাফল্যর কথা আমি বলবো... এক, গরুর জন্য এম্বুলেন্স যা উত্তর প্রদেশে প্রথম চালু করা হয়েছে আর দ্বিতীয় হলো বিনা খরচে সাইকেলে বেধে     মৃতদেহ নিয়ে যাওয়া যা আসামে চালু করা হয়েছে... দুটোই আমার দলের শাসনে থাকা রাজ্য... তাই একটু সুবিধা হয়েছে... এরকম আরো ইউনিক ভাবনা চিন্তা সবসময় আমার মাথায় ঘোরে... 

 

চৌধুরী...: স্যার আপনার সময়কালে একটি এমন বিশেষ ঘটনা বলুন যা সারা বিশ্বের কাছে আপনার ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে.... 

নমো..: একটু ভেবে... অনেক আছে... তবে সম্প্রতি দিল্লির রাজপথে তামিলনাড়ুর   কৃষকদের উলঙ্গ হয়ে নিজেদের মুত্রপান সারা বিশ্বের কাছে একটি বিশেষ বার্তা বহন করেছে....
 
এই মূত্রপান নাকি অনেক কঠিন রোগের অব্যার্থ  ওষুধ... এমন একটা বিশ্বাস সারা বিশ্বে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা হচ্ছে....
পতঞ্জলি এই বিষয়টা দেখছে... আফটার অল  এটাও একটা ভালো ব্যাবসা হতে পারে... 

 

চৌধুরী...: উফফ... স্যার কী বলে যে আপনাকে ধন্যবাদ জানাবো.... স্যার আমি আপ্লুত...আমি ধন্য... স্যার আমার শেষ প্রশ্ন.... এত দেশ বাকী থাকতে শেষপর্যন্ত এই সেন্ট কিটস এ কেনো...?? স্যার এখানে শুনেছি এক গুজরাতি ব্যাবসায়ী দেশের ৭০০০ হাজার কোটি টাকা মেরে বহাল তবিয়তে বসবাস করছেন.... তা আপনি কী.... 

নমো...: আর একটি কথাও নয়.... (থামিয়ে দিয়ে)...(বেশ রেগে গেছেন বোধ হয়, এক হাতে বুম সরিয়ে আর এক হাতে কান থেকে ইয়ার ফোন খুলে দিলেন)..নমস্কার ।
Dissimilar: This is fully an imaginary conversation, not related to any person(s).. If you found any similarity that's just a coincident only. 

Please see other posts in this blog page by clicking "Home" or from "My Favorite Posts" / "Popular Posts" / "Archives" sections, and if any remarks please feel free to post.
Thanks & Vande Mataram!! Saroop Chattopadhyay.

No comments:

Post a Comment